ads

ad

1st Sem, C-2, Broad Questions from Nitisatakam (in Bengali)


1st Sem, C-2, Broad Questions from  Nitisatakam (in Bengali)

১. নীতিশতকস্য   বিদ্বত্পদ্ধতেঃ  বিষয়বস্তু  সংক্ষেপেণ  বিবৃত্য  অধুনা  তস্য  প্রাসঙ্গিকতা আলোচ্যতাম্।
অথবা, নীতিশতকে বিদ্বত্পদ্ধতৌ  বর্ণিতানাং নীতীনাং বিবরণং   প্রদায়  তেষাং প্রাসঙ্গিকতা বিচার্যতাম্।                                                   
 উত্তরম্—সংস্কৃত  শতক- কাব্য রচয়িতাদের মধ্যে ভর্তৃহরি অন্যতম প্রধান। তিনি তিনটি শতক কাব্য রচনা করেছিলেন। তার মধ্যে নীতিশতক অন্যতম। অন্য দুটি হল--  শৃঙ্গারশতক     বৈরাগ্যশতক । বহু বিচিত্র অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে তিনি যে গভীর জীবনবোধ অর্জন করেছিলেন, তারই বাঙ্ময় প্রকাশ ঘটেছে তাঁর কাব্যে। নীতিশতকের শ্লোকগুলিকে বিষয়বস্তুর দিক দিয়ে কতকগুলি পদ্ধতিতে ভাগ করা হয়েছে।  তার মধ্যে বিদ্বত্পদ্ধতি  অন্যতম।
বিদ্বত্পদ্ধতির আলোচ্য বিষয়—                                       পণ্ডিত ও কবিদের প্রতি অনুসরণীয় নীতি--                   ভর্তৃহরি প্রথমেই বলেছেন—শাস্ত্রজ্ঞান দ্বারা বিভূষিত, সুন্দর ভাষণে দক্ষ এবং শিক্ষা দ্বারা শিষ্যদের সদুপদেশ দানকারী কবিগণ দরিদ্র অবস্থায় যে রাজার রাজ্যে বাস করেন, সেই রাজারই জড়তা সূচিত হয়। কবিরা নির্ধন হয়েও ঐশ্বর্যশালী। কাজেই যে রাজার রাজ্যে কবিরা সমাদর পান না, সেই রাজারই  দুর্ভাগ্য।
কবিদের আছে বিদ্যারূপ আন্তর ধনরাশি যা চোরেও চুরি করতে পারে না, যা অবর্ণনীয় কল্যাণ পরম্পরার পুষ্টিসাধন করে, যা  বিদ্যার্থীদের মধ্যে বিতরণ করলেও আর বেশী করে বৃদ্ধি পায়, যা কল্পান্তেও বিনষ্ট হয় না। সম্পদ্ তাঁদের কাছে অকিঞ্চিৎকর। তাই  তাঁরা এর বশীভূত নন। বিদ্যাই পুরুষের চিরস্থায়ী ভূষণ।

বিদ্যাবিষয়ক নীতি—                                                                                      বিদ্যার মাহাত্ম্য  বর্ণনা করে কবি বলেছেন--                বিদ্যা নাম  নরস্য  রূপমধিকং প্রচ্ছন্নগুপ্তং  ধনং            বিদ্যা ভোগকরী  যশঃসুখকরী বিদ্যা গুরূণাং গুরুঃ।        বিদ্যা বন্ধুজনো  বিদেশগমনে বিদ্যা পরং  দৈবতং         বিদ্যা রাজসু পূজিতা ন তু ধনং বিদ্যাবিহীনঃ পশুঃ।।         বিদ্যাই মানুষের সর্বশ্রেষ্ঠ সম্পদ্, সুরক্ষিত গুপ্তধন,। বিদ্যা ভোগ, ঐশ্বর্য, যশ ও সুখ প্রদান করে। বিদ্যা গুরুদের  গুরু, বিদেশগমনে  বিদ্যাই পরম বন্ধু,  বিদ্যা পরম দেবতা। রাজারাও বিদ্যাকে পূজা করেন। বিদ্যাহীন মানুষ পশুর তুল্য। যার কাছে এই অনবদ্য বিদ্যা আছে, তার অন্য ধনের কি প্রয়োজন? কারণ, বিদ্যার দ্বারাই সর্বার্থ সাধন করা  যায়। সেইজন্য বিদ্যা হচ্ছে  উৎকৃষ্ট ধন।

ব্যবহার-বিষয়ক নীতি—                                            কবি বলেছেন--  আত্মীয়-স্বজনের প্রতি উদারতা, সেবকদের প্রতি দয়া, দুর্জনের  প্রতি শঠতা, সজ্জনদের প্রতি প্রীতি, রাজার প্রতি নীতি,  পণ্ডিতদের প্রতি সরল ব্যবহার, শত্রুর প্রতি শৌর্য, গুরুজনে পূজা, স্ত্রীলোকের প্রতি প্রগল্ভতা – এই  সমস্ত  গুণসম্পন্ন মানুষের উপর লোকস্থিতি নির্ভরশীল।  

সৎসঙ্গ-প্রশংসা—                                                     সৎসঙ্গ বুদ্ধির জড়তা দূর করে, কথায় সত্য সঞ্চার করে,  উচ্চ সম্মান প্রদান করে,  পাপ দূর করে, চিত্তকে প্রসন্ন করে, দিকে দিকে যশ বিস্তার করে—    
জাড্যং ধিয়ো  হরতি  সিঞ্চতি  বাচি সত্যং          মানোন্নতিং দিশতি পাপমপাকরোতি।                            চেতঃ প্রসাদয়তি  দিক্ষু  তনোতি  কীর্তিং                        সৎসঙ্গতিঃ কথয় কিং ন করোতি  পুংসাম্।।

জীবনে সুখের উপকরণ—                                          সদাচারী পুত্র, পতিব্রতা পত্নী, প্রসন্ন প্রভু, স্নেহশীল বন্ধু, প্রবঞ্চনাহীন সেবক, সুন্দর আকৃতি, স্থায়ী সম্পত্তি, বিদ্যার দ্বারা নির্মল মুখ –এই সমস্ত সুখের উপকরণ।                                               
কল্যাণলাভের পথ                                                  প্রাণীহত্যা থেকে বিরত থাকা, পরধন-হরণে  সংযম, সত্যভাষণ, যথাশক্তি ও যথাসময়ে দান, পরস্ত্রীচর্চা থেকে বিরত থাকা, কামনা প্রবাহের গতিরোধ, গুরুজনের প্রতি বিনীতভাব এবং সর্বজীবে দয়া –এইগুলিই কল্যাণলাভের বিধিসম্মত পথ।

ভর্তৃহরি-কথিত নীতিসমূহের প্রাসঙ্গিকতা--                                                                                    ভর্তৃহরি-কথিত নীতিগুলি সমাজের সার্বিক কল্যাণের সঙ্গে জড়িত। বর্তমান যুগে সামাজিক অবক্ষয়ের মধ্যে উক্ত কথাগুলি সঞ্জীবনীর মতো। কবি বা জ্ঞানীদের সবসময় সম্মান জানানো উচিৎ।  তাঁদের অবমাননা কখনো কাম্য নয়। জগতে বিদ্যার চেয়ে বড় ধন আর নেই –এটা সর্বদেশে  সর্বকালে সত্য। বিদ্যার দ্বারা সবকিছুই সাধন করা যায়। ভর্তৃহরি স্বজনাদির প্রতি যে ব্যবহারের কথা বলেছেন, তাও বর্তমান যুগে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক। সৎসঙ্গের উপকারিতা, জীবনে সুখের উপকরণ এবং কল্যাণ লাভের পথ সম্বন্ধে তাঁর কথাগুলি যথেষ্ট মূল্যবান্। অতএব সার্বিক বিচারে ভর্তৃহরির নীতিমূলক কথাগুলি এখনো সমানভাবেই প্রাসঙ্গিক।
--------

Comments

Ads

Popular

১. প্রাচীনভারতীয় আয়ুর্বেদশাস্ত্র (Medical Science), ২. বাস্তুশাস্ত্রম্‌ (C-8, Unit II: Scientific and Technical Literature)

বহুল ব্যবহৃত কিছু ইংরেজি শব্দের সংস্কৃত প্রতিশব্দ—

3rd Sem, SEC-1, Usage of words in day-to-day life-1